জোয়ারে ডুবে-ভাটায় জাগে এ অভিশাপ থেকে মুক্তি চায় জনগন , সুজন বিদ্যুতের ভেলকিবাজি, লো-ভোল্টেজ, ট্রান্সফরমার নষ্ট, গড়বিলে অসহনীয়

বাবুল হোসেন বাবলা:২৪ নভেম্বর/ চট্টগ্রাম
নগরীর বিভিন্ন এলাকায় গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানি, জলাবদ্ধতাসহ বিভিন্ন ধরনের নাগরিক সমস্যা চিহ্নিত করন এবং তা থেকে পরিত্রানের লক্ষ্যে কর্মপন্থা নির্ধারনের জন্য জনদূর্ভোগ লাঘবে জনতার ঐক্য চাই নাগরিক উদ্যোগ শীর্ষক এক মতবিনিময় সভা ২৩ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ২৭নং দক্ষিণ আগ্রাবাদ ওয়ার্ড ছোটপুলস্থ এম.ডি.সি টাওয়ার সংলগ্ন ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়।বিশিষ্ট সমাজসেবক হাজী সেকান্দর এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন।

সভায় প্রধান অতিথি আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন বলেন, বানিজ্যিক রাজধানী খ্যাত চট্টগ্রামের প্রাণকেন্দ্র হচ্ছে আগ্রাবাদ এবং তৎসংলগ্ন এলাকাগুলো। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয় এই যে, প্রতিনিয়ত জোয়ার ভাটার কারণে এই এলাকার স্বাভাবিক জীবনধারা মারাতœকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। স্কুল কলেজের ছাত্র ছাত্রীরা নিয়মিত ভোগান্তিতে পড়ছে। জোয়ার ভাটার কারণে শিক্ষার্থীদের পাঠদান ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। সরকারী বেসরকারী অফিস সমূহের দৈনন্দিন কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়ছে। এই এলাকার জনসাধারনের চলাচলের একমাত্র সড়ক আগ্রাবাদ এক্সেস রোডটি জোয়ার ভাটার কারণে সম্পূর্ণরূপে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। বড় বড় গর্ত এবং পানি জমে থাকার কারণে দূর্ঘটনা নিত্য নৈমত্ত্যিক ব্যাপার হয়ে দাড়িয়েছে। আগ্রাবাদ এক্সেস রোড এবং এর আশেপাশের ব্যবসায়ীরা কোটি কোটি টাকার লোকসানের সন্মূখীন হয়েছে জোয়ারের পানির কারণে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এই এলাকায় বসবাসরত নি¤œ আয়ের লোকজন। জোয়ারের পানিতে তাদের ঘরের আসবাবপত্র থেকে শুরু করে সমস্ত জিনিসপত্র ভিজে সয়লাব হয়ে গিয়েছে। জোয়ার ভাটার এ অভিশাপ থেকে মুক্তি চায় এলাকার জনগন। তাই অবিলম্বে সল্টগোলা ক্রসিংয়ে যেখানে মহেশখাল কর্ণফুলী নদীতে সংযুক্ত হয়েছে সেখানে পাম্প হাউসসহ পরিকল্পিত স্লুইস গেট নির্মাণ, পিএস আরএস খতিয়ান অনুযায়ী খালকে পুনুরুদ্ধার এবং খনন করে দুপাশে রিটার্নিং ওয়াল দিয়ে জনগনের জন্য হাঁটাপথ ও পর্যটন সম্ভাবনা সৃষ্ঠির জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট আহবান জানান।

সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এই এলাকাসহ চট্টগ্রামের জলাবদ্ধতা নিরসনের জন্য ৫৬১৭ কোটি টাকার যে বরাদ্ধ প্রদান করেছেন তার সঠিক এবং কার্যকর ব্যয় নিশ্চিত করার জন্য সিডিএ কতৃপক্ষের নিকট আবেদন জানান।

এছাড়াও অত্র এলাকায় বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধানে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপের অভাবে প্রতিনিয়তই বিদ্যুতের ভেলকিবাজি, লো-ভোল্টেজ, ট্রান্সফরমার নষ্ট, গড়বিলে অসহনীয় অবস্থার সৃষ্ঠি হয়েছে। সন্ধ্যার পর সেটা আরো মারাতœক আকার ধারন করে। ফলতঃ শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার মনোসংযোগে ব্যাঘাত হচ্ছে। বর্তমানে পিএসসি পরীক্ষা চলাকালীন এ ধরনের অবস্থা কোনভাবেই কাম্য নয়। লো-ভোল্টেজ এর কারণে বাসা বাড়ীর ফ্রিজ, টেলিভিশন, ওভেনসহ বিভিন্ন ধরনের ইলেকট্রিক পন্য হার হামেশাই নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। তার উপর বিদ্যুতের ভয়ানক গড়বিল এলাকাবাসীকে সরকারের প্রতি বিক্ষুদ্ধ করে তুলছে প্রতিনিয়ত। শিল্পকারখানায় উৎপাদন মারাতœকভাবে বিঘিœত হচ্ছে। এই এলাকায় প্রি-পেইড মিটার স্থাপনের নামে গ্রাহকের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা আদায় করা হচ্ছে। জনাব সুজন কি কারণে এ টাকা আদায় করা হচ্ছে ও স্থাপিত প্রি-পেইড মিটারগুলোর যান্ত্রিক ত্রুটি গুলো অবিলম্বে নিরসনের জন্য বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের প্রতি মতবিনিময় সভা থেকে আহবান জানান।

যে হোল্ডিং ট্যাক্স পূর্ণমূল্যায়ন নিয়ে এখনো জনমনে বিভ্রান্তি এবং শংকা বিরাজ করছে সে হোল্ডিং ট্যাক্স পূর্ণমূল্যায়ন নিয়ে জনগনের মুখোমুখি না হওয়ার জন্য মেয়রকে আহবান জানান তিনি।যেহেতু এ বছর দীর্ঘ বর্ষা এবং জলাবদ্ধতার কারণে আগ্রাবাদ এলাকার ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্থ সেহেতু জলাবদ্ধতা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত ঐ এলাকার জমির খাজনা, হোল্ডিং ট্যাক্স এবং ট্রেড লাইসেন্স কার্যক্রম স্থগিত রাখার সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের জন্য জনাব সুজন আহবান জানান।

স্থানীয় সমাজকর্মী আরিফ নেওয়াজ এর সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ২৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল ইব্রাহিম, সিলভার বেলস স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাজী আনোয়ার হোসেন, দেওয়ান আলী মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ জামাল, আব্দুল মন্নান, শামসুল হক, শহীদুল আলম বাবুল, শামীম আহমেদ, রেজাউল করিম খন্দকার বুলবুল, শের খাঁন, ছোটপুল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আব্দুর রহমান, হাজী হোসেন কোম্পানী, হাজী হাবিব শরীফ, মোরশেদ আলম, সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আজিজুর রহমান আজিজ, আব্দুর রহিম, স্বরূপ দত্ত রাজু, নগর ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রনি মির্জা, এহেতাসুন আলম জিসান, মনজুর আহমেদ, মোঃ হাসান মুরাদ, মোঃ জিসান, স¤্রাট দেবনাথ, মোঃ মুন্না, মোঃ জনি, মোঃ আলভী প্রমূখ।

x

Check Also

বিজয়ে জম্ম নেওয়া মহিউদ্দিন বিজয়েই চির বিদায় চট্টগ্রাম…!

মরিতে চাই না আমি সুন্দর ভুবনে, বাচিঁতে চাই সর্বদা এই চট্টলায়….., আমি অহংকারী বীর চট্টলার ...