কর্ণফুলী নদী বাঁচাও আন্দোলনের সভায় বক্তারা ঐতিহ্যবাহী কর্ণফুলী নদী সহ চট্টগ্রাম জেলার নদ-নদীগুলো রক্ষা করুণ

ঐতিহ্যবাহী কর্ণফুলী নদী বাঁচাও আন্দোলনের উদ্যোগে “কর্ণফুলী নদী বাঁচলে চট্টগ্রাম বাঁচবে” এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে ঐতিহাসিক কর্ণফুলী উৎসব ২০১৭ এর প্রস্তুতি সভা ২১ নভেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর অভমিত্রঘাটস্থ একটি রেস্টুরেন্টে সংগঠনের সভাপতি ও পটিয়া প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি মাস্টার হাফেজ আহমদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। প্রস্তুতি সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ইতিহাস গবেষক সোহেল মুহাম্মদ ফখরুদ-দীন, সংগঠনের সহ-সভাপতি পরিবেশবাদী সংগঠক এ.কে.এম. আবু ইউসুফ, আইনজীবী খায়ের আহমদ, মোহাম্মদ আবদুর রহিম, মোহাম্মদ ইউনুচ কুতুবী, নজরুল ইসলাম, মোহাম্মদ নুরুল আলম, অধ্যাপক দিদারুল আলম, ডা. শওকত জাহান, মোহাম্মদ জানে আলম, নয়ন বড়–য়া, শাহানুর আলম, খায়ের আহম্মদ, মাস্টার আবদুল করিম, হাবিবুর রহমান, মোহাম্মদ শফিকুল আলম, অনুতোষ দত্ত বাবু, জসিম উদ্দিন মোহাম্মদ প্রমুখ। সভায় বক্তারা বলেছেন, কর্ণফুলী নদী বাঁচলে চট্টগ্রাম বাঁচবে, আর চট্টগ্রাম বাঁচলে বাংলাদেশ বাঁচবে। কর্ণফুলী নদীকে দূষণ ও দখলের হাত থেকে রক্ষা করতে হবে। সভায় উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, সম্প্রতি নাসার বিজ্ঞানীদের অভিমত অনুসারে আগামী ১০০ বছরের মধ্যে চট্টগ্রাম গভীর সমুদ্রে তলিয়ে যাবে! বিশ্ব জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সমুদ্র ও নদীপৃষ্ট উঁচু হয়ে যাচ্ছে, যার ফলে নদী ভরাট ও নদীর নাব্যতা কমে যাচ্ছে। পরিবেশ ধ্বংসের ফলে চট্টগ্রামের উপর এই বিপদ ঘনিয়ে আসছে। আমরা প্রতিনিয়ত পরিবেশের সাথে বিমাতাসূলভ আচরণ করছি। ধ্বংস করছি পাহাড় ও বনাঞ্চল। বৃক্ষ নিধন সবুজ অরণ্য ধ্বংস করছি প্রতিদিন। স্রষ্টার অপরূপ সৃষ্টি নদ-নদীগুলোকে হত্যা করছি ইচ্ছামত। কেউ যেন দেখার নেই। সভায় বক্তারা জোড় দিয়ে বলেছেন, চট্টগ্রামের মৃতপ্রায় নদ-নদীগুলোকে পুনরুজ্জীবিত করা গেলে ও মারাত্মক দূষনের হাত থেকে নদী গুলোকে রক্ষা করা না গেলে চট্টগ্রাম বাঁচবে না। এ অবস্থা চলতে থাকলে চট্টগ্রাম বন্দর সহ এই বাণিজ্যিক নগরী পরিবেশে নষ্টের কারণে মারাত্মক বিপর্যয় নেমে আসবে। সভায় বক্তারা আরো বলেছেন, কর্ণফুলী নদী সহ চট্টগ্রাম জেলার প্রত্যকটি নদীকে বাঁচিয়ে রাখতে ঐতিহাসিক কর্ণফুলী উৎসব ২০১৭ উদযাপনের মাধ্যমে মানব সচেতনতা তৈরীর মাধ্যমে কর্ণফুলী নদী সহ নদী মাতৃক বাংলাদেশকে পরিবেশ সম্মত ভাবে বাঁচিয়ে রাখার জন্য এই প্রয়াস সৃষ্টি করতে হবে। ডিসেম্বর মাসের প্রথম সাপ্তাহে চট্টগ্রামে দেশ বিদেশের নদী ও পরিবেশ গবেষকদের উপস্থিতিতে একটি সেমিনার ও কর্ণফুলী উৎসব ২০১৭ উদযাপিত হবে। কর্ণফুলী উৎসবের মাধ্যমে জনসচেতনতা সৃষ্টি ও নদ-নদী রক্ষার জন্য এটি একটি জনউদ্যোগ।

x

Check Also

বিজয়ে জম্ম নেওয়া মহিউদ্দিন বিজয়েই চির বিদায় চট্টগ্রাম…!

মরিতে চাই না আমি সুন্দর ভুবনে, বাচিঁতে চাই সর্বদা এই চট্টলায়….., আমি অহংকারী বীর চট্টলার ...