নিষেধাজ্ঞা শেষ : পদ্মা মেঘনায় ইলিশ ধরা শুরু

 

চাঁদপুর, ২৩ অক্টোবর ২০১৭ (বাসস) : ইলিশ আহরণের বাইশ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষ হয়েছে। গতকাল মধ্যরাত থেকে পদ্মা- মেঘনায় ইলিশসহ সব ধরনের ধরছে জেলেরা। পহেলা অক্টোবর থেকে ২২ অক্টোবর এ বাইশ দিন ইলিশের সর্বোচ্চ প্রজনন মৌসুম হওয়ায় সরকার পদ্মা-মেঘনার ১০০ শত কিলোমিটার এলাকা মাছের অভয়াশ্রম ঘোষণা দিয়ে সব রকম মাছ ধরা নিষিদ্ধ করে। এ ইলিশ রক্ষা কার্যক্রম বাস্তবায়নে প্রতিবছর প্রশাসন অভিযান চালায়। এবারের অভিযানে জাল-নৌকাসহ আটক ১১৮ জেলেকে জেল জরিমানা করা হয়। এই সময় ইলিশের আড়তগুলো ছিলো অনেকটাই মাছ শূন্য।
জেলা মৎস্য অফিস সূত্রে জানাযায়, চাঁদপুরে ইলিশ সম্পদ রক্ষায় গঠিত জেলা ও উপজেলা টাস্কফোর্স এবার পদ্মা-মেঘনায় একশতটি অভিযান পরিচালনা করে ১শ’ ৪৩টি মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ১০৭টি মামলা দায়ের করেছে। ৯০জন জেলেকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়ে পাঠানো হয় কারাগারে। ২৮ জনের নিকট জরিমানা আদায় করা হয় ১ লাখ ১৩ হাজার টাকা। জব্দ করা হয় ৭ লাখ ৬৪ হাজার ৯শ’ মিটার কারেন্টজাল এবং ২ হাজার ৪শ’ কেজি ইলিশ। নিষেধাজ্ঞার বাইশ দিনের জন্যে বিশেষ খাদ্য সহায়তা কর্মসূচির আওতায় জেলার চার উপজেলার ৩৬ হাজার ৫৭৫জন জেলেকে ২০ কেজি করে মোট ৭ ৩১.৫ মে: টন চাল দেয়া হয়েছে। এছাড়া বিকল্প কর্মসংস্থান হিসেবে ৮৬০জন জেলেকে পশু পালনের জন্যে ছাগল ও সেলাই মেশিন দেয়া হয়েছে।
জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ সফিকুর রহমান জানান, অক্টোবরের ভরা পূর্ণিমায় গভীর সমূদ্র থেকে ইলিশ মিঠা পানিতে ডিম ছাড়ার জন্যে নদ নদীতে চলে আসে। তাই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে চাঁদপুরসহ দেশের বিভিন্ন জেলার নদ নদীতে ইলিশ মাছ শিকার বন্ধ করতে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করে। গত বছরের চেয়ে এবার জেলে আটকের ঘটনা ঘটেছে বেশি। গতবার ৩৬ জন জেলে আটক হলেও এবার নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ ধরায় ৯০ জন জেলেকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয়া হয়েছে এবং ২৮ জেলেকে জরিমানা করা হয়েছে।

x

Check Also

ঈদে মিলাদুন্নবী (দঃ)হচ্ছে মুসলিম মিল্লাতের ঐক্যের প্রতীক,সূফি মিজান

হোসেন বাবলা:১৯নভেম্বর বন্দর নগরীতে নগর গাউছিয়া কমিটির উদ্যোগে পবিত্র মাহে রবিউল আউয়াল উপলক্ষে স্বাগত জানিয়ে ...