রোহিঙ্গা ইস্যুতে চীন ও রাশিয়া বাংলাদেশের পাশে রয়েছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

চলমান রোহিঙ্গা সংকট ইস্যুতে এশিয়ার অন্যতম ক্ষমতাধর দুই দেশ চীন ও রাশিয়াও বাংলাদেশের পাশে রয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত প্রেস বিফ্রিংয়ে তিনি একথা জানান।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, চীন ও রাশিয়াও আনান কমিশনের রিপোর্টের বাস্তবায়ন চায়। গোটা পৃথিবী আমাদের সাথে আছে। আনান কমিশনের রিপোর্ট বাস্তবায়ন করতেই হবে। কফি আনান কমিশনের রিপোর্টের বাস্তবায়ন চায় রাশিয়া ও চীন। গত শুক্রবার জাতিসংঘে আরিয়া ফরমুলা বৈঠকে তারা এটির সম্মতি জানায়।

তিনি আরও বলেন, চীনের বক্তব্যে কফি আনান কমিশনের বক্তব্য নেই। কিন্তু চীন বলেছে, এ লোকগুলো পরশুদিন যায়নি। যুগ যুগ ধরে রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে বসবাস করছে। এতেই বোঝা যায়, চীন ও রাশিয়া বাংলাদেশের পাশে রয়েছে।

এক বছরের কম সময়ে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানের ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করে মন্ত্রী বলেন, মিয়ানমারের উর্দিওয়ালাদের কাছে আমরা আরো তথ্য দেবো যে, রোহিঙ্গারা তাদের দেশের নাগরিক। কিছুদিন আগেও তারা রোহিঙ্গাদের পুরস্কৃত করেছে।

তিনি বলেন, জাতিসংঘের হিসেব অনুযায়ী রাখাইন রাজ্যে সর্বশেষ সহিংসতার পর ৫ লাখ ৪০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে এসেছে। সহিংসতা বন্ধ না হওয়ায় ১৯৯২ সাল থেকে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গার সংখ্যা ৯ লাখে দাঁড়িয়েছে। এখন নিরাপদে রোহিঙ্গাদের তাদের দেশে পাঠানো আমাদের লক্ষ্য। বাংলাদেশের কূটনৈতিক প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

x

Check Also

বাংলাদেশ-কোরিয়া কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, চট্টগ্রাম’র চাকরি মেলায় মোঃ হাবিবুর রহমান দক্ষ জনশক্তি তৈরি ও নতুন নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে হবে

বাংলাদেশ-কোরিয়া কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, চট্টগ্রাম’র উদ্যোগে গত ১৬ ফেব্র“য়ারি, ২০১৮ইং চাকরি মেলা নাসিরাবাদস্থ বিকেটিটিসি প্রাঙ্গণে ...