ধর্ষণের অপরাধে ১৮ বছরের জেল নামি ক্রিকেটারের

অবশেষে জেলে যাচ্ছেন সাবেক দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার ডিয়োন তালজার্ড। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল তিনি দীর্ঘ ১০ বছর ধরে এক নারীকে ১৫০ বারেরও বেশি ধর্ষণ করেছেন। সম্প্রতি সেই অভিযোগে তিনি দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন। তারপরেই আদালতের রায়ে জেলই তার একমাত্র ঠিকানা হতে চলেছে আগামী ১৮ বছরের জন্য।

ব্রিটেন মুলুকেই এক নারীর উপরে ২০০২-১২ পর্যন্ত দীর্ঘ ১০ বছর ধরে ধর্ষণক্রিয়া চালান তিনি। রীতিমতো ব্ল্যাকমেলিং করেই নিজের কুকীর্তি চালিয়ে যেতেন ওই ক্রিকেটার। ইংল্যান্ডের সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, শুধুমাত্র যৌনক্রিয়াই নন, শারীরিকভাবেও সংশ্লিষ্ট ওই নারীকে অসংখ্য বার হেনস্থা করেছেন তিনি। অভিযোগ, গলা টিপে, দু-হাত ভাঁজ করে যন্ত্রণা দিতেন নারীকে।

সংবাদমাধ্যমে আরও জানানো হয়েছে, আরও অত্যাচারের ভয়ে তালজার্ডের গোপন কর্ম এতদিন ফাঁস করেননি নারী। তবে সমস্ত সহ্যের বাঁধ ভেঙে যায় ২০১৫ সালে। পুলিশকে খুলে সমস্ত বিষয় জানান নারী। তারপরেই চলতি সপ্তাহে ম্যাঞ্চেস্টারের মিনসুল স্ট্রিট ক্রাউন কোর্টে তিনি দোষী সাব্যস্ত হন।

দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক এই ক্রিকেটার ঘরোয়া ক্রিকেটে বর্ডারের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন ১৯৯৩ থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত। তারপরেই তিনি খেলাধুলো ছেড়ে ইংল্যান্ডে পাড়ি দেন। ১৭ বছর আগে ব্রিটেনে পাড়ি দেয়ার পর ওল্ডহ্যাম, বোল্টন এবং বুরি-র হয়ে ক্লাব ক্রিকেটে খেলতেন তালজার্ড। তবে তালজার্ডের ক্যারিয়ারের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ কৃতিত্ব হল, একটি প্রদর্শনী ম্যাচে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ৬ উইকেট লাভ করা। হ্যাটট্রিক করেছিলেন মোহাম্মদ ইউসুফ, আজহার মাহমুদ এবং সাঈদ আনোয়ারকে আউট করে।

যদিও আদালতের এই রায় মানছেন না তালজার্ড। নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে উচ্চতর আদালতে আবেদন করবেন তিন সন্তানের জনক ৪৭ বছরের এই ক্রিকেটার। তার পাশে রয়েছেন গার্লফ্রেন্ড জ্যাকেলিন কোস্তেলো।

x

Check Also

সমকামিতা ইস্যুতে বলি তারকাদের তোপের মুখে রবিশঙ্কর

‘সমকামিতা এক ধরনের প্রবণতা। এটা চিরস্থায়ী নয়।’ এমন কথায় তোপের মুখে পড়লেন শ্রী শ্রী রবিশঙ্কর। ...