ইউএসএআইডি’র কমিউনিটিভিত্তিক পুষ্টি উন্নয়ন প্রকল্পের অবহিতকরণ কর্মশালা


ইউএসএআইডি’র অর্থায়নে এবং কারিতাস বাংলাদেশ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন কমিউনিটিভিত্তিক পুষ্টি উন্নয়ন প্রকল্পের অবহিতকরণ কর্মশালা আজ আগষ্ট ২২, ২০১৭ তারিখে রোজ গার্ডেন রেস্টুরেন্ট এন্ড পার্টি সেন্টার, বাগবাড়ী লক্ষীপুর জেলায় অনুষ্ঠিত হয়। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক), লক্ষীপুর জেলা শেখ মুর্শিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসন লক্ষীপুর হোমায়রা বেগম। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, রামগতি উপজেলা মোঃ আজগর আলী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, কমলনগর উপজেলা মোঃ মাসুদুর রহমান মোল্লা এবং আঞ্চলিক পরিচালক কারিতাস চট্টগ্রাম মি. জেমস্ গোমেজ। এছাড়াও কর্মশালায় লক্ষীপুর জেলার বিভিন্ন উপজেলার বিভিন্ন বিভাগের সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ অংশগ্রহণ করেন। প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, গর্ভবতী ও দুগ্ধদানকারী অপুষ্টির সমস্যা সমাধান কল্পে ইউএসএআইডি’র আর্থিক সাহায়তায় কারিতাস যে প্রকল্প শুরু করতে যাচ্ছে তা সময়োপযোগী। তিনি স্বচ্ছতার সাথে প্রকল্প কার্যক্রম বাস্তবায়নে এবং প্রশাসনের সাথে সমন্বয় রেখে প্রকল্প কার্যক্রম বাস্তবায়নের উপরও গুরুত্ব প্রদান করেন। তিনি আরও বলেন, যাদেরকে উদ্দেশ্য করে কারিতাস এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে তার যেন কার্যক্রমের সুফল পায় এবং কার্যক্রম বাস্তবায়ন শেষে মা ও শিশু মৃত্যুহার কমে সে পদক্ষেপ নিতে হবে। পাশাপাশি অন্যান্য বক্তারা মা ও শিশু মৃত্যুও কারণ ও তা প্রতিকারের উপায় বিষয়ে বক্তব্য উপস্থাপন করেন। সমাপনী বক্তব্যে সভাপতি বলেন, দেশব্যাপী পুষ্টি সমস্যা সমাধানে কারিতাসের এ উদ্যোগে সকলকে সহায়তা প্রদানের আহবান রাখেন।
উল্লেখ্য, ইউএসএআইডি-এর কমিউনিটি ভিত্তিক পুষ্টি উন্নয়ন প্রকল্পটি গর্ভবতী মহিলা, শিশুকে স্তন্যদানকারী মা এবং জন্ম থেকে ২ বছর বয়সী শিশুর অপুষ্টি হ্রাসকরণে ভোলা জেলার সব কয়টি (৭টি) উপজেলায় (ভোলা সদর, দৌলতখান, বোরহানউদ্দিন, তজুমুদ্দিন, লালমোহন, চরফ্যাশন ও মনপুরা), নোয়াখালী জেলার ২টি উপজেলায় (সুবর্ণচর ও হাতিয়া) এবং লক্ষ্মীপুর জেলার ২টি উপজেলায় (রামগতি ও কমলনগর) বাস্তবায়িত হবে। ইউএসএআইডি-এর কমিউনিটি ভিত্তিক পুষ্টি উন্নয়ন প্রকল্পটির লক্ষ্য হলো উক্ত কর্মএলাকায় বিশেষভাবে গর্ভবতী মহিলা, শিশুকে স্তন্যদানকারী মা এবং জন্ম থেকে ২ বছর বয়সী শিশুর অপুষ্টি হ্রাস করা। প্রকল্পের প্রধান কার্যক্রমগুলো হলো-পারিবারিক পর্যায়ে গর্ভবতী মহিলা, শিশুকে স্তন্যদানকারী মা এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্য যেমন বাবা, শ্বশুড়/শ্বাশুড়ীদের মা ও শিশু পুষ্টির উপর কাউন্সেলিং, কিশোরীদের স্বাস্থ্য ও পুষ্টি শিক্ষা প্রদান, এবং পয়নিষ্কাশনের উপর শিক্ষা প্রদান এর মাধ্যমে মা ও শিশুর প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সেবা নিশ্চিত করা। পাশপাশি কমিউনিটি পর্যায়ে বিভিন্ন স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সেবাপ্রদানকারী সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বিশেষ করে কমিউনিটি ক্লিনিক, ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের সেবাপ্রদানকারী সহ কমিউনিটি ক্লিনিক সার্পোট গ্রুপ (CSG)  এবং লোকাল সার্ভিস প্রোভাইডারদের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় পুষ্টি প্রশিক্ষণ প্রদান করবে। এই কার্যক্রম কমিউনিটি ক্লিনিক, ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের সমন্বয়ে বাস্তবায়ন করা হবে। কর্মশালায় অংশগ্রহণকারী প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথিসহ সকল অংশগ্রহণকারী প্রকল্পটি সুষ্ঠু বাস্তবায়নে সার্বিক সহযোগিতা প্রধানের আশ্বাস প্রদান করেন।

x

Check Also

১২ দিনব্যাপী ১৫ অক্টোবর থেকে চিটাগাং লাইফ স্টাইল এক্সপোজিশান-২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী ১৫ অক্টোবর থেকে চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি এর উদ্যোগে ...