ধর্ষণের সত্যতা স্বীকার করেছেন নাঈম

বনানীর আবাসিক হোটেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অন্যতম আসামি নাঈম আশরাফ প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম এ কথা জানিয়েছেন।

এর আগে বনানীতে দুই তরুণীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের কথা স্বীকার করেন গ্রেফতার অপর দুই আসমি সাফাত ও সাকিফ।  তবে বিষয়টিকে তারা ধর্ষণ মানতে নারাজ। তাদের মতে সমঝোতার ভিত্তিতে এ সম্পর্ক হয়েছিল। এটা ধর্ষণ হয় কীভাবে?

বৃহস্পতিবার (১৮ মে) সকালে সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে মনিরুল বলেন, প্রধান অভিযুক্তকে কেবল জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে নাঈমকে বৃহস্পতিবার আদালতে তোলা হবে। কোন পরিস্থিতিতে কীভাবে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে তা আরও জিজ্ঞাসাবাদে জানা যাবে।

ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

x

Check Also

হাজার মাসের শ্রেষ্ঠ রাত ‘লাইলাতুল কদর’

লাইলাতুল কদর, মহিমান্বিত রজনী। এ রাতের মর্যাদা দান করেছেন আল্লাহ তাআলা। তিনি বলেছেন, ‘লাইলাতুল কদর; ...