চট্টগ্রামে অস্ত্রসহ গ্রেফতার আ’লীগ নেতার ভাইকে ছিনতাই

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলায় অস্ত্রসহ গ্রেফতার আওয়ামী লীগ নেতা ও স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানের ভাই সাইফুদ্দিন বাপ্পীকে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার সারোয়াতলী ইউনিয়নের হোরারবাগ চেয়ারম্যান বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এসময় তিন পুলিশ সদস্য আহত হন।

বাপ্পী উপজেলার সরোয়াতলী ইউনিয়নের হাজী আবুল বশরের ছেলে এবং সারোয়াতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বেলাল হোসেনের ছোট ভাই।

পুলিশ জানায়, গত ১ মে বায়েজিদ বোস্তামী থানাধীন দক্ষিণ শহীদনগর এলাকা থেকে দুটি এলজি ও ১১ রাউন্ড কার্তুজসহ ফোরকান (৩৪), রাজীব (২৩) ও হারুন (৩২) নামে তিন যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে তারা পুলিশকে জানায় বোয়ালখালী উপজেলার বাপ্পীই এই অস্ত্রের যোগানদাতা।

এরপর থেকে বাপ্পীকে গ্রেফতারে ফাঁদ পাতে পুলিশ। অস্ত্রের ক্রেতা সেজে পুলিশের একটি টিম বাপ্পীর সঙ্গে যোগাযোগ করে। তাদের কাছে বাপ্পী ৩০টি অস্ত্র বিক্রিতে সম্মত হন। অস্ত্রগুলো তার বাড়ি থেকে আনতে হবে বলে ক্রেতাবেশী পুলিশ সদস্যদের জানান বাপ্পী।

গত বৃহস্পতিবার বায়েজিদের আমিন জুট মিল সংলগ্ন পেট্রল পাম্পের সামনে বাপ্পী পুলিশের ছদ্মবেশী টিমের কাছে অস্ত্র বিক্রি বাবদ নগদ টাকা নিতে আসলে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বাপ্পী পুলিশকে জানায়, তার বোয়ালখালীর গ্রামের বাড়িতে বেশ কিছু অস্ত্র এবং অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম রয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে বাপ্পীর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে একটি বিদেশী রিভলবার, একটি শাটার গান, একটি এয়ারগান, একটি চাইনিজ কুড়াল, চারটি বিভিন্ন সাইজের দেশীয় তৈরি দা (ধামা), ১৬টি বিভিন্ন সাইজের ছোট-বড় ছোরা এবং অস্ত্র তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

বায়েজিদ বোস্তামী থানার ওসি মো. মহসিন যুগান্তরকে জানান, অভিযান শেষে গ্রেফতার বাপ্পীসহ উদ্ধারকৃত অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ফিরছিল পুলিশ। পথে চেয়ারম্যান বাড়ির পাশে আসামির ছোট ভাই সালাউদ্দিন রুমির (৪২) নেতৃত্বে ৫০-৬০ জন দুর্বৃত্ত অতর্কিত হামলা চালিয়ে বাপ্পীকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

তিনি জানান, এ ঘটনায় পুলিশের তিন এসআই মোহাম্মদ আইয়ুব উদ্দিন, এইচএম এরশাদ উল্লাহ ও মো. মফিজ উদ্দিন আহত হন।

সিএমপির সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (পাঁচলাইশ জোন) এসএম মোবাশ্বের হোসেন জানান, পুলিশের ওপর হামলা ও আসামি ছিনতাই এবং কর্তব্য কাজে বাধা প্রদানের অভিযোগে বাপ্পী ও রুমির নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ৫০-৬০ জনকে আসামি করে বোয়ালখালী থানায় পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় সাইফুদ্দিন বাপ্পীকে আসামি করে বায়েজিদ বোস্তামি থানায়ও অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ছিনিয়ে নেয়া আসামি বাপ্পীকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

x

Check Also

চন্দনাইশে মিলাদুন্নবী (দ.) মাহফিল বন্ধ করার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে মানববন্ধন

বর্তমান বিশ্ব মুসলমান স্বার্থের প্রতি অন্ধহয়ে মারাত্মক ভাবে আদর্শ-ন্যায় নীতিহীন জাতিতে পরিণত হয়েছে। আক্বিদা তথা ...