বান্দরবানে পাথর উত্তোলন বন্ধে দায়িত্বে অবহেলা চার সচিবসহ ১২ জনকে আসামি করে মামলা

বান্দরবান প্রতিনিধি :অবশেষে বান্দরবানের পাহাড়ের ঝিরি ঝরনা থেকে পাথর উত্তোলন বন্ধে প্রশাসনের দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় চার মন্ত্রলায়ের সচিবসহ মোট ১২ জনকে আসামি করা হয়েছে।

রবিবার বান্দরবানের সিনিয়র সহকারি জজ মনিষা মহাজনের আদালতে জনস্বার্থে এ মামলাটি করেন লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালি ইউনিয়নের জনৈক শিমুল জলাই ত্রিপুরা।

মামলার বাদি শিমুল জলাই জানান, দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার বিভিন্ন পাহাড়ি ঝিরি ঝরনা খোদাই করে পাথর পাচার করছিল পাচারকারীরা। পাথর উত্তোলনের ফলে দিন দিন ঝিরি পানির উৎস নষ্টের পাশাপাশি পরিবেশ ও ধ্বংস হচ্ছিল। কিন্তু এতকিছুর পরও প্রশাসন কোন ব্যবস্থা না নেওয়ায় আমি জনস্বার্থে মামলাটি দায়ের করি।

এদিকে আদালত সূত্র জানায়, বান্দরবানের লামা উপজেলার বিভিন্ন এলাকার পাহাড়ি ঝিরি ঝরনা থেকে অব্যাহতভাবে পাথর আহরণ স্থায়ীভাবে বন্ধের নির্দেশ চেয়ে লামার ফাসিঁয়াখালি ইউনিয়নের শিমুল জলাই ত্রিপুরা নামের এক ব্যক্তি স্বপ্রনোদিত হয়ে মামলাটি করেছেন। সিনিয়র সহকারি জজের আদালতে করা মামলাটিতে চার মন্ত্রনালয়ের সচিবসহ ১২ জনকে আসামি করা হয়েছে।

এ মামলায় কেন স্থায়ীভাবে পাথর উত্তোলন বন্ধ হবেনা তা জানতে চেয়ে আগামি ১৫ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন আদালত।

আসামিরা হলেন, পার্বত্য মন্ত্রনালয়, ভুমি মন্ত্রনালয়, খনিজ সম্পদ মন্ত্রনালয় ও জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ের চার সচিব, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার, বান্দরবানের জেলা প্রশাসক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব), লামা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা ভুমি কর্মকর্তা, লামা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। এছাড়াও পাথর পাচারকারী লামার ছাগলখাইয়া এলাকার বাসিন্দা আলী হোসেন ও পৌর এলাকার বাসিন্দা প্রদীপ দাশ।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

x

Check Also

আজ ক্যাব গোল্ড মেডেল বৃত্তি পরীক্ষা

ডেক্স রিপোট:১৪ডিসেম্বর(রাত্র) কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ ক্যাব এর গোল্ড মেডেল বৃত্তি পরীক্ষা ১৫ ডিসেম্বর শুক্রবার ...