দ্বিতীয় ম্যাচে হেরে গেলো বাংলাদেশের মেয়েরা

শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত নারী বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে জয় তুলতে পারলে না রুমানা আহমেদরা। কলম্বোয় ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে বুধবার (৮ ফেব্রুয়ারি) পাকিস্তানের কাছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল হেরেছে ৬৭ রানের ব্যবধানে।

জয়ের জন্য এদিন ২২৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা খুব বেশি ভালো করতে পারেনি বাংলাদেশের মেয়েরা। মাঝে কিছুটা সময় সানজিদা ইসলাম ও নিগার সুলতানা কিছুটা হাল ধরার চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত ৪৯.৩ ওভারে ১৬০ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ শিবির।

দলের পক্ষে উইকেটরক্ষক কাম ব্যাটসম্যান নিগার সুলতানা করেছেন সর্বোচ্চ ৪১ রান। ৭২ বলে এই ইনিংসে তিনি হাঁকিয়েছেন মাত্র ২ টি চারের মার। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৪ রান করেছেন সানজিদা। এই ইনিংস খেলতে তিনি বল খরচ করেছেন ৬৭ টি। ফারজানা হক ১৭ আর শারমিন আক্তারের ১২ রান ছাড়াও আর কোন ব্যাটসম্যান এদিন পৌঁছাতে পারেননি দুই অঙ্কের কোটায়।

পাকিস্তান নারীদের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩ টি উইকেট নিয়েছেন গোলাম ফাতিমা। আর ২ টি করে উইকেট নিয়েছেন নাসরা সান্দু ও সানা মির।

এর আগে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন পাক অধিনায়ক সানা মির। ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে ২২৭ রান সংগ্রহ করেন তারা। ওপেনিং জুটিতে ৭৬ রান তুলে ভালো শুরু এনে দেন আয়েশা জাফর (৩৪) ও নাহিদা খান (২৮)। এছাড়া বিসমাহ মারুফ ৩৫, নায়ান আবিদি ২৭ (রানআউট), রাবিয়া শাহ ৩৪ ও আলিয়া রিয়াজ ৩১ রান করে আউট হন। মাত্র ৩ রানে সালমা খাতুনের এলবিডব্লুর শিকার হন পাকিস্তান ক্যাপ্টেন সানা মির। ৫০ তম ওভারের শেষ বলে নাশরা সান্ধুর (১) রানআউটের মধ্য দিয়ে তাদের সবকটি উইকেটের পতন ঘটে।

বাংলাদেশ অধিনায়ক রুমানা আহমেদ নিয়েছেন সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট। খাদিজাতুল কুবরা ও সালমা খাতুন নিয়েছেন ২টি করে উইকেট। ১টি উইকেট নিয়েছেন জাহানারা আলম।

প্রসঙ্গত, গেল ৭ ফেব্রুয়ারি নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাপুয়া নিউ গিনিকে ১১৮ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে শুভ সূচনা করে বাংলাদেশ। অন্যদিকে একই দিনের অপর ম্যাচে দক্ষিণ আফিকার কাছে ৬৩ রানে হার দিয়ে আসর শুরু করে পাকিস্তান নারী দল।

বাংলাদেশ নারী দলের পরবর্তি ম্যাচ কলম্বোতে আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি। যেখানে প্রতিপক্ষ হিসেবে থাকবে স্কটল্যান্ড নারী দল।

 

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

x

Check Also

বিরল রেকর্ড গড়ে ওয়াকারকে ছাড়িয়ে গেলেন হাসান আলি

একটা সময় ক্রিকেটারদের আতঙ্ক ছিল পাকিস্তানের পেশ বোলাররা। ওয়াসিম আকরাম, ওয়াকার ইউনুস কিংবা শোয়েব আক্তাররা ...