তিন দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে ক্লান্ত বিসিবি বস

তিনি জাতীয় সংসদের সংসদ সদস্য। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি। আবার একটি করপোরেট প্রতিষ্ঠানে বড় পদে চাকরি করেন। এক সঙ্গে তিনটি দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন নাজমুল হাসান। সোমবার নিজ বাসভবন ধানমন্ডিতে তিনি নিজেই ক্লান্তির কথা বলেছেন। সংবাদমাধ্যকে নাজমুল এও জানিয়ে দিয়েছেন, আর একসঙ্গে তিনটি দায়িত্ব পালন করা তার পক্ষে সম্ভব নয়,‘ কিছু একটা তো ছাড়তেই হবে।’

কিন্তু কোনটি ছাড়বেন? করপোরেট প্রতিষ্ঠানের চাকরি। সংসদ সদস্য পদ নাকি বিসিবির সভাপতির পদ এ নিয়ে পরিষ্কার কিছু বলেননি। সাবেক রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের ছেলে নাজমুল হাসান। রাজনীতি তার পরিবার সূত্রে পাওয়া। মা আইভি রহমানও রাজনীতি করতেন। ২১ আগষ্টের গ্রেনেড হামলায় মাকে হারিয়েছেন নাজমুল। এরপর বাবাকেও হারান।

রাজনীতির সঙ্গে নাজমুলের আবেগ জড়িত। তিনি বলেন,‘ আমি চাকরি করি আবার একটি এলাকার সংসদ সংসদ সদস্যও। আমাকে সংসদে যেতে হয়। কিন্তু বিসিবি সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে আমি এলাকার কাজে একদমই সময় দিতে পারছি না।’ এরপর যোগ করেন,‘ চাকরিতে আগে যে পরিমাণ সময় দিতাম এখন তার অর্ধেক সময় দিই।’

বিসিবির দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে বাকি দুটিতে কম সময় দিতে পারছেন নাজমুল। বোর্ডের সভাপতি হিসেবে অনেক দায়িত্ব পালন করতে হয়। অনেক দেশ ভ্রমণে যেতে হয়। আবার বাংলাদেশ যেখানে খেলতে যায় সেখানেও যওয়া লাগে। নাজমুল বলেন,‘ আইসিসির সভা শেষ করে মাত্র দুবাই থেকে ফিরেছি। এখন আবার টেস্ট উপলক্ষে হায়দরাবাদ যাব। সেখান থেকে এসে পেশাগত কাজে আবারও দেশের বাইরে যেতে হবে। অনেকে বেশি ট্রাভেলিং করতে হচ্ছে। এই বয়সে এত বেশি ট্রাভেলিং করা কঠিন।’

নাজমুলের নেতৃত্বাধীন বিসিবির বর্তমান পরিচালনা পর্ষদের মেয়াদ আছে ছয় মাসের মত। এরপরই হবে নির্বাচন। সেই নির্বাচনেও সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন কি না এমন প্রশ্নে নাজমুল বললেন,‘ নিজের তরফ থেকে আমার না করার সম্ভাবনাই বেশি।’

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

x

Check Also

মেসির স্বপ্নপূরণ, নাম লেখালেন ইতিহাসের পাতায়

সর্বশেষ লা লিগার ম্যাচে আতলেটিকোর বিপক্ষে ম্যাচে গোল না পেলেও বার্সার হয়ে দুর্দান্ত ফর্মে লিওনেল ...