ট্রাম্পের আবেদন আদালতে খারিজ

অভিবাসন ইস্যুতে নির্বাহী আদেশের ওপর স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের আপিল আবেদন খারিজ করে দিয়েছে দেশটির আদালত।

রোববার দেশটির উচ্চ আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

ওই নির্বাহী আদেশে সাত মুসলিম দেশের নাগরিকদের প্রবেশের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিলেন নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

স্থানীয় সময় শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ আনুষ্ঠানিকভাবে স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে আপিল করে।

আপিলকারীদের মধ্যে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ছাড়াও হোমল্যান্ড সিকিউরিটি মন্ত্রী জন কেলি এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন রয়েছেন। খবর বিবিসির।

আপিলে ট্রাম্প প্রশাসন জানায়, যুক্তরাষ্ট্রকে নিরাপদ রাখতে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে জরুরি পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন।

এর আগে গত শুক্রবার সিয়াটলের একটি ফেডারেল আদালতের বিচারক জন রবার্টস তার রায়ে মুসলিমদের নিষিদ্ধ করে জারি করা ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশকে মার্কিন সংবিধানের লংঘন বলে আখ্যায়িত করেন।

একই সঙ্গে গোটা যুক্তরাষ্ট্রে ওই আদেশের কার্যকারিতা স্থগিত করে রুল দেন তিনি।

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প ওই বিচারককে ‘তথাকথিত’ বলে মন্তব্য করেন ট্রাম্প।

একই সঙ্গে নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করার জন্য স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার জরুরি বলে দাবি করেন তিনি।

ট্রাম্প বলেন, ‘তার রুলিংয়ের ফলে দেশের হাত থেকে আইন প্রয়োগের ক্ষমতাকেই কার্যত কেড়ে নেয়া হয়েছে। এই হাস্যকর রায় উল্টে দেয়া হবে।’

গত ২৭ জানুয়ারি এক নির্বাহী আদেশে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ইরান, ইরাক, সিরিয়া, ইয়েমেন, লিবিয়া, সোমালিয়া ও সুদানের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্র প্রবেশের ৯০ দিনের জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি করেন।

ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশের পর গত এক সপ্তাহে ওই সাতটি দেশসহ বিশ্বের এক লাখের উপরে মার্কিন ভিসা বাতিল করা হয়েছে।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

x

Check Also

মেসির স্বপ্নপূরণ, নাম লেখালেন ইতিহাসের পাতায়

সর্বশেষ লা লিগার ম্যাচে আতলেটিকোর বিপক্ষে ম্যাচে গোল না পেলেও বার্সার হয়ে দুর্দান্ত ফর্মে লিওনেল ...