‘আমি শাহরুখের ছবি দেখে বড় হয়েছি’ – মাহিরা | আটটি প্রশ্নের উত্তরে মাহিরা যা বলেছেন

‘রইস’ ছবিটি গত ২৫ জানুয়ারি মুক্তি পেয়েছে। ছবিটিতে শাহরুখ খানের বিপরীতে অভিনয় করেছেন পাকিস্তানের অভিনেত্রী মাহিরা খান। ছবির সাফল্যের পর এক সংবাদ সম্মেলনে অনেক অজানা তথ্য দেন মাহিরা। এ সময় তাঁর পরনে ছিল সাদা রঙের একটি টি-শার্ট। সম্মেলনে করা আটটি প্রশ্নের উত্তরে মাহিরা যা বলেছেন, সেটি প্রকাশ করেছে ডিএনএ ইন্ডিয়া।

১. মাহিরার পরিবারের প্রতিক্রিয়া 
‘আমরা এখানে ছবিটি দেখেছি এবং আমাকে না, শাহরুখকে দেখার পর আমার পরিবার চিৎকার করে উঠেছিল।’ ‘রইস’ দেখার পর পরিবারের এমন প্রতিক্রিয়ার কথাই জানান মাহিরা। পরিবারের প্রতিক্রিয়া শোনার পর শাহরুখ খান বলেছিলেন, “প্রথম দৃশ্যে আমি শার্ট খুলে ফেলেছিলাম, নিজেকে আঘাত করছিলাম। তোমার (মাহিরার) প্রথম দৃশ্য ছিল ‘কাটে নাহি লাগতি’ গানে। এ কারণেই তোমার মা আমাকে পছন্দ করেছেন।”

২. ভারত সফর
মাহিরা বলেন, ‘আমি শাহরুখের ছবি দেখে বড় হয়েছি। বেশিরভাগই বলিউডের ছবি দেখেছি। আমি যখন মুম্বাই পৌঁছেছি তখন ভেবেছিলাম, অন্তত আমার ওড়না বাতাসে উড়বে, শাহরুখ আমার দিকে দৌড়ে আসবেন। কিছুই হয়নি।’

এ কথা শুনে রসিক শাহরুখ বলেন, ‘আমরা ওড়নার ওই দৃশ্য গুজরাটে করেছি। এই ছবির বাজেট খুব বেশি ছিল না, তাই আমরা সুইজারল্যান্ডে যেতে পারিনি।’

৩. শুটিং সহজ নয় 
‘যে দৃশ্যে শাহরুখ আমার সঙ্গে চিৎকার করছিলেন, সেই দৃশ্যটা একটু কষ্টকর ছিল। গানের শুটিংয়ের আগে যখন আমরা গানটির অনুশীলন করছিলাম, তখন শাহরুখ আমাকে অনেক হাসিয়েছেন। যখন গানের শুটিং করছিলাম, তখন আমি আমার হাসি ধরে রাখতে পারছিলাম না। আমাদের পরিচালক রাহুল ঢোলাকিয়া আমাকে মনোযোগ দিতে বলেছিলেন। পরিচালককে বলেছিলাম, শাহরুখের কারণেই আমি হাসছি।’

৪. শাহরুখের সঙ্গে প্রথম দেখা 
“প্রথম দেখার দিনই আমি ‘রইস’ ছবির জন্য চুক্তি করেছি। আমরা একটা ফটোশুট করেছিলাম। তখন আমাকে বলা হয়, শাহরুখ এখানে এসেছেন এবং তাড়াতাড়ি যেন আমি বাইরে আসি। তাই তাড়াতাড়ি দৌড়ে গেলাম, কুশল বিনিময় হলো। তিনি আমাকে সাহস দিলেন। প্রথম দেখার সময়টা সংক্ষিপ্ত ছিল; কিন্তু ভালো ছিল। আমি ভেবেছিলাম, চারদিকে বাতাস হবে এবং গাছের পাতা ঝরে পড়বে; কিন্তু তেমন কিছুই হলো না। বরং আমিই একমাত্র নায়িকা, যার জন্য শাহরুখ বাহু প্রসারিত করে দাঁড়াননি।”

এই কথার পরিপ্রেক্ষিতে শাহরুখ বললেন, ‘তুমি খুবই ছোট। একটা গানের মধ্যে আমি তোমাকে কোলে নিয়েছি।’

৫. ফাওয়াদ খান, না শাহরুখ খান 
‘আমার প্রথম কাজ ফাওয়াদ খানের সঙ্গে, তিনি খুবই ভালো মানুষ। তাঁর সঙ্গে কাজ করতে ভয় পাইনি। তিনি সহকর্মী হিসেবে খুবই ভালো। এবং শাহরুখের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা একেবারেই ভিন্ন। এ দুজনের মধ্যে তুলনা করাটা ভুল হবে।’

৬. ভারতে প্রচারে না থাকার কারণ 
‘এ বিষয়ে অনেক কিছু বলার আছে। আপনি যদি আমার জায়গায় থাকতেন তাহলে দেখতেন, গান ও ছবির ট্রেইলার মুক্তির পর কতটা ভালোবাসা আমি পেয়েছি। বিষয়টি আমার জন্য অন্য যেকোনো কিছুর চেয়েই অনেক বেশি। এ পর্যন্ত আসতে পেরে আমি খুশি। এটা আমার জন্য যথেষ্ট।’

৭. পাকিস্তানে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া প্রসঙ্গে
“আপনি বুঝতে পারবেন না, আমরা কতটা চাই যে নিষেধাজ্ঞা না থাকুক। ‘রইস’ অনেক বড় ছবি এবং সবাই আমার কাছে এর মুক্তির বিষয়ে জানতে চেয়েছে। সবাই অপেক্ষা করেছে নিষেধাজ্ঞা ওঠার জন্য।”

৮. পাকিস্তানে প্রতিক্রিয়া 
‘এ ছবির জন্য যে ধরনের প্রতিক্রিয়া আমি পেয়েছি, সেটা আমি আশা করিনি। এটা সবকিছু ছাড়িয়ে গেছে। এ প্রতিক্রিয়ার জন্য আমি খুবই কৃতজ্ঞ। আমরা আমাদের চরিত্রের জন্য মানানসই ছিলাম, এটাই সবাই বেশি প্রশংসা করেছে।’

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

x

Check Also

`আমি সালমান খানকে বিয়ে করতে চাই‍‍`

টলিউড অভিনেতা দেবের সঙ্গে চলচ্চিত্রে অভিষেক হতে যাচ্ছে রুক্মিনি মৈত্রর। আসছে ২৩ জুন এ জুটির ...