প্রথমবার ই-নাইন ফোরামের সম্মেলন, সেজেছে ঢাকা

বিশ্বের উচ্চ সংখ্যক জনগোষ্ঠীর দেশগুলোর জোট ‘ই-নাইন ফোরাম’র মন্ত্রী পর্যায়ের একাদশ সম্মেলন ঢাকায় শুরু হচ্ছে রোববার (৫ ফেব্রুয়ারি)। এ উপলক্ষে রাজধানী ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ সড়কে বাহারি ফেস্টুন-প্ল্যাকার্ড ও ব্যানার দিয়ে সাজানো হয়েছে।

‘ই-নাইন মিনিস্ট্রিয়াল মিটিং অন এডুকেশন-২০৩০’ শীর্ষক এ সম্মেলনের প্রথমবারের মতো আয়োজক বাংলাদেশ। এবারই প্রথম বাংলাদেশ এ সম্মেলনের সভাপতির দায়িত্ব পালন করবে।

আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তিন দিনব্যাপী এ শিক্ষাবিষয়ক টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অজর্ন সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

প্রধান অতিথি থেকে রাজধানীর হোটেল রেডিসন ব্লুতে তিন দিনব্যাপী এ সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদিন সকাল ১০টায় সম্মেলন শুরু হওয়ার কথা থাকলেও ঢাকায় এসএসসি পরীক্ষার্থীদের যাতায়াতের সুবিধার্থে সাড়ে ১০টায় শুরু করবেন প্রধানমন্ত্রী।

বিশ্বব্যাপী টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) বাস্তবায়নের পটভূমিতে গঠিত ই-নাইন ফোরামের সদস্য রাষ্ট্রগুলোর শিক্ষাবিষয়ক লক্ষ্য অর্জনের কার্যকর কৌশল নির্ধারণের জন্য ১১তম এ সম্মেলন আয়োজন করেছে বাংলাদেশ।
ই-নাইন ফোরামের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে সেজেছে ঢাকা/ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম‘ই-নাইন’ দেশগুলো বিশ্বের মোট জনসংখ্যার অর্ধেকেরই প্রতিনিধিত্ব করে। এসডিজি বাস্তবায়নের প্রেক্ষাপটে ঢাকায় আয়োজিত ই-নাইন ফোরামের মন্ত্রী পর্যায়ের এ সম্মেলন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। ই-নাইন সম্মেলনের মাধ্যমে এ আন্তর্জাতিক সংস্থার গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরা হবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত থাকবেন- ইউনেস্কোর মহাপরিচালক ইরিনা বোকোভা এবং ই-নাইনের সব সদস্য রাষ্ট্রের শিক্ষামন্ত্রীসহ উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা। সম্মেলনটির কার্যকর আয়োজনের মধ্যদিয়ে দেশের ভাবমূর্তি তুলে ধরার চেষ্টা করবে বাংলাদেশ।

ইউনেস্কোর এডুকেশন ফর অল কর্মসূচির আওতায় গঠিত এ ‘ই-নাইন’ ফোরামের সদস্য দেশগুলো হচ্ছে বাংলাদেশ, ব্রাজিল, চীন, মিশর, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, মেক্সিকো, নাইজেরিয়া ও পাকিস্তান। এ দেশগুলোতে বিশ্বের অর্ধেক জনগোষ্ঠীর বসতি, আর এসব দেশের বিশ্বের মোট নিরক্ষরের ৭০ শতাংশের বসবাস।

১৯৯৩ সালে ‘ই-নাইন ফোরাম’ ভারতের নয়াদিল্লিতে শীর্ষ সম্মেলনের মধ্যদিয়ে যাত্রা শুরু করে। এরই মধ্যে ১০টি পর্যালোচনা সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসব সম্মেলনে অংশ নেওয়া প্রতিনিধিরা শিক্ষা ক্ষেত্রে তাদের নিজ নিজ অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন, অর্জন ও সেরা কাজগুলো তুলে ধরেন।
ই-নাইন ফোরামের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে সেজেছে ঢাকা/ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমশুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ জানান, পূর্বে ১০টি মন্ত্রী পর্যায়ের সম্মেলন ‘সবার জন্য শিক্ষা’ কর্মসূচি সফল করার লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের উদ্দেশ্যে আয়োজিত হয়েছিলো।

সম্মলনে বাংলাদেশের জন্যে সুখবর হচ্ছে ফোরামের পরবর্তী দুই বছর মেয়াদের জন্য চেয়ারম্যান হতে যাচ্ছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। ফোরামের বর্তমান সভাপতি পাকিস্তান। বাংলাদেশের শিক্ষামন্ত্রীকে এ দিন সভাপতির দায়িত্বও হস্তান্তর করা হবে। এতে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি অনেকাংশে উজ্জ্বল হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

তিনদিনের এ সম্মেলনের শেষে এসডিজি-৪ বাস্তবায়নের রোডম্যাপ সম্বলিত ‘ঢাকা ডিক্লারেশন’ গৃহীত হওয়ার কথা রয়েছে।

এ ধরনের সম্মেলন আয়োজন করতে পেরে তারা গর্বিত বলেও মন্তব্য করেন শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

x

Check Also

ট্রান্স-এশিয়ান রেলওয়ে; এক টিকিটে এশিয়ার দশটিরও বেশি দেশ ভ্রমণ

ট্রান্স-সাইবেরিয়ান রেলওয়ের কথা শুনেছেন অনেকেই। এটা নিয়ে হয়েছে মুভি, বই। হয়েছে ভ্রমণ কাহিনী। চীন থেকে ...