জানাজায় অংশ নিয়ে কাঁদলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী

কানাডার কুইবেকের মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত মুসলিমদের জানাজায় অংশ নিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়লেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। জানাজায় অংশ নিয়ে জাতীয় ঐক্যের ডাক দিয়েছেন কানাডার এই প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে গত রোববার সন্ধ্যায় কুইবেকের একটি মসজিদে বন্দুকধারীর হামলায় অন্তত ৬ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। শুক্রবার কুইবেক শহর কনভেনশন সেন্টারে প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো, দেশটির গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, কমিউনিটি নেতা, এবং হাজার হাজার মানুষ জানাজায় অংশ নেন।

নিহত ছয়জনের মধ্যে মামাদো তানু ব্যারি (৪২), ইব্রাহিম ব্যারি (৩৯), ও আজেদিন সুফিয়ান (৫৭) নামের তিনজনের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কানাডার জাতীয় দৈনিক দ্য স্টার বলছে, তানু ব্যারি ও ইব্রাহিম ব্যারি আফ্রিকার দেশ গিনির নাগরিক ছিলেন। এছাড়া সুফিয়ান মরক্কো থেকে কানাডায় অভিবাসী হিসেবে এসেছিলেন।

treadu

জানাজায় অংশ নিয়ে ট্রুডো বলেন, আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের অন্যায় ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নেতৃত্বদানকারী প্রত্যেকেই এ জন্য দায়ী। আমরা যা করছি; তা আমাদের প্রতিনিধিত্ব করছে, কানাডার প্রতিনিধিত্ব করছে, দেশের প্রতিনিধিত্ব করছে। মামাদো তানু ব্যারি, ইব্রাহিম ব্যারি, ও আজেদিন সুফিয়ানও এই দেশকে অত্যধিক ভালোবাসতেন।

মসজিদে গোলাগুলিতে নিহত অপর তিনজনের জানাজা মন্ট্রিলে অনুষ্ঠিত হওয়ার পর বাকি তিনজনের জানাজা শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। কুইবেক মরিচ-রিচার্ড এলাকায় বৃহস্পতিবারের জানাজায় অংশ নেয়া হাজার হাজার মানুষের উদ্দেশ্যে কানাডার প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই গণহত্যা কানাডার মানুষের সঙ্গে মুসলিম সম্প্রদায়ের সঙ্গে সৌহার্দ্য আরো জোরদার করেছে।

Minister

জানাজায় আগতদের উদ্দেশ্যে আরবি ভাষায় ট্রুডো বলেন, আস-সালামু-আলাইকুম। এ সময় সবাই কানাডার প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করেন। ট্রুডো বলন, ‘আমি কুইবেকের মুসলিমদের বলতে চাই : আপনারা এখানে বাড়িতে আছেন। আমরা সবাই কুইবেকারস।’

Check Also

ম্যানচেস্টারে হামলা, আইএস সমর্থকদের উল্লাস

প্যারিসে ফুটবল স্টেডিয়ামের বাইরে হোক কিংবা মধ্যরাতের নিস, বারবার সন্ত্রাস আতঙ্কে কেঁপেছে ইউরোপ। নাশকতায় রক্তাক্ত …

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply