ই-টিআইএনধারীর সংখ্যা ২৭ লাখ

দেশে এখন নিবন্ধিত করদাতা বা ই-টিআইএনধারীর (ইলেক্ট্রনিক কর শনাক্তকারী নম্বর) সংখ্যা ২৭ লাখ। গত ১ ফেব্রুয়ারি নতুন এই মাইলফলক স্পর্শ করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

এছাড়া প্রতি দিন গড়ে ছয় থেকে সাত হাজার নতুন করদাতা কর জালের আওতায় আসছে। ফলে এনবিআর আশা করছে চলতি ২০১৬-১৭ অর্থবছর শেষে ই-টিআইএনধারীর সংখ্যা ৩০ লাখে উন্নীত হবে।
নিবন্ধিত করদাতার সংখ্যা ২৭ লাখে উন্নীত হওয়াকে মাইলফলক হিসেবে দেখছেন এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান। তিনি বাসসকে বলেন, ৩ লাখ নতুন করদাতা খুঁজে বের করার লক্ষ্য থাকলেও চলতি অর্থবছরের প্রথম ৪ মাসে আমরা সেটা করতে সক্ষম হয়েছি।
তিনি বলেন, নতুন করদাতা খুঁজে বের করতে বছরের শুরুতে প্রত্যেক কর অঞ্চলের সংশি¬ষ্ট কর্মকর্তাদের সর্বোচ্চ মনোযোগী হওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলাম। এছাড়া নতুন করদাতা যুক্ত করতে শহরের পাশাপাশি উপজেলা পর্যায়েও কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। অনলাইনে ই-টিআইএন নেওয়াসহ নানামূখী পদক্ষেপের কারণে ই-টিআইএন নিবন্ধনধারী করদাতার সংখ্যা এভাবে দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।
তিনি বলেন,ই-টিআইএনধারীর সংখ্যা ২৭ লাখে উন্নীত হওয়ায় বোঝ যায়, জনগনের মাঝে কর-সচেতনতা তৈরি হয়েছে। এখন কর কার্যালয়গুলোকে হয়রানিমূক্ত করা হয়েছে। জনগনের মধ্য থেকে কর-ভীতি দূর হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
উল্লেখ্য, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ই-টিআইএনধারীর সংখ্যা ছিল ১২ লাখের কম। ফলে গত ৬ মাসের ব্যবধানে ই-টিআইএনধারীর সংখ্যা বেড়েছে ১৫ লাখ।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

x

Check Also

ঝিনাইদহে খাদ্য অধিদপ্তর কর্তৃক কালো তালিকাভুক্ত ৪২৮ চালকল, বোরো চাল সংগ্রহ অভিযান ব্যর্থ হওয়ার আশঙ্কা

জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহ জেলায় চলতি বোরো সংগ্রহ অভিযানকালে খাদ্য বিভাগের সঙ্গে চাল সরবরাহের চুক্তি ...