সাগরতলে ঘুমিয়ে রয়েছে ৩০০ কোটি বছর আগের বিশাল মহাদেশ!

বিশাল মহাদেশের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। আছে এর চিহ্ন। গবেষকরা দাবি করেছেন, মহাদেশটি ৩০০ কোটি বছরের পুরোনো। মহাদেশটি দেখতে যেতে হবে সাগরতলে। ভারত মহাসাগরের তলদেশে পাওয়া গেছে ওই মহাদেশের অংশ।

সংবাদমাধ্যম ‘ইন্ডিয়া টুডে’ জানিয়েছে, ভারত মহাসাগরের দ্বীপরাষ্ট্র মরিশাসের কাছে সাগরতলে ওই মহাদেশের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে।

গবেষকদের দাবি, এটা ‘হারিয়ে যাওয়া মহাদেশ’। কোটি কোটি বছর আগে বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া গন্ডোয়ানা মহাদেশের একটি অংশ বলে দাবি করছেন তাঁরা। এর যুক্তি হিসেবে রঙিন গোমেদ পাথর যা জারকন নামে পরিচিত তাকেই তুলে ধরেছেন তাঁরা। গবেষকদের দাবি, বৈচিত্র্যময় ওই পাথরের চিহ্নের উপস্থিতিই প্রমাণ করে দেয় এটি মহাদেশের অংশ। আর গন্ডোয়ানা শেষ হয়ে যাওয়ার পর থাকা চিহ্ন।

গন্ডোয়ানা প্রাচীন একটি মহাদেশের নাম। দক্ষিণ গোলার্ধের বেশির ভাগ ভূভাগ এই মহাদেশের অন্তর্ভুক্ত ছিল।

দক্ষিণ আফ্রিকার উইটওয়াটারস্রান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূ-তত্ত্ববিদ লুইস অ্যাশওয়াল জানান, মরিশাসের কাছে সাগরতলে যে জারকন (গোমেদ পাথর) পাওয়া যায়, এতে বোঝা যাচ্ছে এলাকাটি মহাদেশের কোনো অংশ।

বলা হয়, ভারত মহাসাগরের দ্বীপ মরিশাসের জন্ম হয় আগ্নেয়গিরির কারণে। নতুন ওই গবেষণায় দেখা যাচ্ছে, ২০ কোটি বছর আগে যখন গন্ডোয়ানা প্রদেশ ভেঙে যায়, তখন ওই মহাদেশটি থেকে যায়। আর বহু বছর পর এর অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়ার দাবি করলেন গবেষকরা।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

x

Check Also

পিএসজির হয়ে মাঠে নামার আগে কাঁদলেন নেইমার

দে পাঁসে তুলুজের বিপক্ষে ম্যাচ। সতীর্থদের সঙ্গে দাঁড়ালেন নেইমার। দলীয় সঙ্গীত গাইলেন। তখনই নেইমারকে দেখা ...