মুসলিম প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা: অধিক নিরাপদ বোধ করেন এক-তৃতীয়াংশ মার্কিনি

সাতটি মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে ডোনাল্ড ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা অারোপে আগের চেয়ে বেশি নিরাপত্তা বোধ করেন এক তৃতীয়াংশের চেয়েও কম মার্কিন নাগরিক।

নিষেধাজ্ঞার যুক্তি হিসেবে ট্রাম্প মার্কিন নাগরিকদের নিরাপত্তার কথা বললেও এক-তৃতীয়াংশের চেয়েও কম নাগরিক মনে করেন, প্রেসিডেন্টের এ উদ্যোগ তাদের ‘আরও নিরাপদ’ করেছে।

বুধবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স/ইপসোসের এক জরিপে এ তথ্য জানা গেছে। গত ৩০ ও ৩১ জানুয়ারি এ জরিপ চালানো হয়।

জরিপে দেখা যায়, ট্রাম্পের এ সিদ্ধান্তের ফলে আগের চেয়ে নিরাপদ বোধ করছেন ৩১ শতাংশ মার্কিন নাগরিক। এছাড়া ২৬ শতাংশ মানুষ  ‘আরও অনিরাপদ’ বোধ করছেন। তবে ৩৩ শতাংশ মার্কিনি জানিয়েছেন, তারা কোনো পার্থক্য খুঁজে পাচ্ছেন না এবং বাকিরা এখনও বিষয়টি বুঝতে পারছেন না।

গত শুক্রবার ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরাক, ইরান, সিরিয়া, লিবিয়া, সোমালিয়া, সুদান ও ইয়েমেনের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে ৯০ দিনের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে এক নির্বাহী আদেশ জারি করেন। আর সিরিয়ার নাগরিকদের ক্ষেত্রে এ আদেশ পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত জারি থাকবে বলে জানানো হয়। যুক্তরাষ্ট্রের দ্বৈত-নাগরিক ও গ্রিন কার্ড হোল্ডাররাও ট্রাম্পের এ নির্বাহী আদেশের আওতায় পড়েছেন।

এ আদেশের পর দেশ ও দেশের বাইরে তীব্র সমালোচনার মুখে ট্রাম্প বলেছেন, মুসলমানদের নিষিদ্ধ করা তার উদ্যেশ্য নয়, বরং তিনি আমেরিকাকে সন্ত্রাস থেকে দূরে রাখতে চান।

এদিকে, মার্কিন আরেক জনমত জরিপের ফলাফল উল্লেখ করে বিবিসি জানিয়েছে, অভিবাসীদের প্রবেশে কড়াকাড়ি আরোপসহ যেসব নির্বাহী আদেশ জারি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প; তা নিয়ে বিতর্ক হলেও বেশিরভাগ আমেরিকান তার এসব আদেশ সমর্থন করছেন।

যদিও তাদের বড় একটি অংশ মনে করেন, মুসলিম শরণার্থীদের বাদ দিয়ে খ্রিস্টানদের অগ্রাধিকার দেওয়াটা ঠিক হবে না।

Check Also

‘প্রকাশ্যে অস্ত্র উঁচিয়ে গুলিবর্ষণকারী’ সেই যুবলীগ ক্যাডারকে গ্রেফতার করেছে কোতোয়ালী থানার ওসি জসিম উদ্দিন –

নগরীর মোমিন রোড ঝাউতলা এলাকায় ‘প্রকাশ্যে অস্ত্র উঁচিয়ে গুলিবর্ষণকারী’ সেই যুবলীগ ক্যাডারকে গ্রেফতার করেছে কোতোয়ালী …

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply