কুরিয়ারে চাকরির আড়ালে অস্ত্র-বিস্ফোরক সরবরাহ করতেন রমি

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর জঙ্গি আস্তানা থেকে আটক মাহবুবুর রহমান ওরফে রমি ‍কুরিয়ার ব্যবসার নামে মূলত অস্ত্র ও বিস্ফোরক সরবারহ করতেন। তার মূল দায়িত্ব ছিল বগুড়া অঞ্চলে জেএমবির গোপন পার্সেলগুলো সঠিক ব্যক্তির হাতে পৌঁছে দেওয়া।

২০১৫ সালে বগুড়ার একটি কুরিয়ার সার্ভিসে চাকরির সময়ে আশফাক নামে একজনের সঙ্গে পরিচয় হয় রমির। এরপর থেকে ওই কাজ শুরু করেন। বুধবার ভোরে যাত্রাবাড়ীর জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকেসহ চার জঙ্গিকে আটক করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

বৃহস্পতিবার সমকালে প্রকাশিত ‘কুরিয়ার সার্ভিসে চাকরির আড়ালে জঙ্গিদের অস্ত্র বিস্ফোরক সরবরাহ’ শীর্ষক প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বুধবার ভোরে যাত্রাবাড়ীর দনিয়া এলাকার একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে রমিসহ চার জঙ্গিকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১০। এর মধ্যে জেএমবির তথ্যপ্রযুক্তি শাখার প্রধান মোহাম্মদ আশফাক-ই-আজম ওরফে আপেল ওরফে আবদুল্লাহও রয়েছেন।

জঙ্গিদের আস্তানা হিসেবে ব্যবহৃত ওই বাসার মালিক একজন নারী বলে জানিয়েছে র‌্যাব। তিনি র‌্যাবকে বলেছেন, আটকরা গুলশানে নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন বলে তাকে তথ্য দিয়েছিলেন। বাড়ির মালিক তাদের পরিচয়পত্রসহ বিস্তারিত তথ্য দিতে বললে তারা পরে দেবেন বলে জানিয়েছিলেন।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

x

Check Also

ঝিনাইদহে জাতীয় স্যানিটেশন মাস অক্টোবর ও বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালিত

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ “পরিচ্ছন্ন হাত, সুন্দর ভবিষ্যৎ” এ প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে ঝিনাইদহে জাতীয় স্যানিটেশন মাস ...