পুলিশ কিয়ারেন্স সার্টিফিকেট মিলবে ঘরে বসেই

পুলিশ কিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের জন্য আবেদনকারীকে আর থানায় থানায় দৌড়াতে হবে না। ঘরে বসেই অনলাইনে মিলবে এই সার্টিফিকেট। চলতি মাসেই সারা দেশে এই ব্যবস্থা চালু করতে যাচ্ছে পুলিশ সদর দপ্তর। এতে পুলিশ কিয়ারেন্স সার্টিফিকেটপ্রত্যাশীদের ভোগান্তির পাশাপাশি সময়ও বাঁচবে বলে মনে করেন পুলিশ কর্মকর্তারা। বর্তমানে হাতে লিখে পুলিশ কিয়ারেন্স সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। এ ব্যবস্থা সহজ করতে কয়েক বছর আগেই ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার কার্যালয়সহ আরও কয়েকটি জেলায় ওয়ানস্টপ সার্ভিস চালু রয়েছে।

পুলিশ সদর দপ্তর সূত্র বলছে, প্রতিবছর কয়েক লাখ বাংলাদেশি বৈদেশিক কর্মসংস্থান, উচ্চতর শিক্ষা কিংবা স্থায়ীভাবে বসবাস করতে বিদেশ পাড়ি দেন। এই বাংলাদেশিরাই হয়ে ওঠেন দেশের অর্থনীতির অন্যতম চালিকাশক্তি। ভিসা নবায়ন কিংবা প্রথমবারের জন্য ভিসা পেতে স্বদেশ থেকে পুলিশ কিয়ারেন্স সার্টিফিকেট গ্রহণ করতে হয় তাদের। এই সার্টিফিকেট বিদেশি দূতাবাসে জমা দিতে হয়। কিন্তু এটি পেতে আবেদনকারী বা তার প্রতিনিধিকে পুলিশের বিভিন্ন দপ্তর ও থানায় থানায় দৌড়াতে হয়। এতে আবেদনকারী কিংবা তার প্রতিনিধিকে প্রায়ই ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হয়। এই ভোগান্তি লাঘব, কিয়ারেন্স সার্টিফিকেট প্রাপ্তি সহজসাধ্য এবং দ্রুত করতেই অনলাইন ব্যবস্থা চালুর উদ্যোগ নিয়েছে পুলিশ সদর দপ্তর। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এটুআই প্রকল্পের আর্থিক সহযোগিতায় অনলাইনে পুলিশ কিয়ারেন্স সার্টিফিকেট প্রদানের ব্যবস্থা চালু করা হচ্ছে।

জানা গেছে, বিদেশগামী কিংবা বিদেশে বসবাসকারী বাংলাদেশিরা যে কোনো স্থান থেকে অনলাইনে আবেদন করে চাহিদা অনুযায়ী ঘরে বসে সরকারি ডাক কিংবা বেসরকারি কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে পুলিশ কিয়ারেন্স সার্টিফিকেট নিতে পারবেন। আবেদনকারীকে সশরীরে থানায় যেতে হবে না। মহানগর পুলিশ কমিশনার কার্যালয় কিংবা জেলা পুলিশের তদারককারী কর্মকর্তারা পুলিশ কিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের আবেদনগুলোর হালনাগাদ অবস্থা অনলাইনেই পর্যবেক্ষণ করতে পারবেন। এতে জবাবদিহিতা নিশ্চিত হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন পুলিশ কর্মকর্তারা।

অনলাইনে যেসব পুলিশ কিয়ারেন্স সার্টিফিকেট ইস্যু করা হবে তা আগের হাতে লেখা সার্টিফিকেটের তুলনায় অনেক পরিচ্ছন্ন হবে। এতে নিরাপত্তাসূচক কিউআর কোডসংবলিত থাকবে। পুলিশ সদর দপ্তরের ডিআইজি (মিডিয়া) একেএম শহীদুর রহমান আমাদের সময়কে জানান, ১৫ জানুয়ারি অনলাইনে পুলিশ কিয়ারেন্স সার্টিফিকেটপ্রাপ্তির ব্যবস্থা চালু করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*